শ্রীলঙ্কায় অর্থায়নের পরিকল্পনা নেই বিশ্বব্যাংকের

অর্থনৈতিক সংকটে থাকা শ্রীলঙ্কার জন্য নতুন কোনও আর্থিক পরিকল্পনা নেই বিশ্বব্যাংকের। বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ঋণদাতা সংস্থাটি জানিয়েছে, একটি উপযুক্ত সামষ্টিক অর্থনীতির ফ্রেমওয়ার্ক কার্যকর করার আগ পর্যন্ত দ্বীপ দেশটির জন্য তাদের কোনও আর্থিক পরিকল্পনার প্রস্তাব নেই। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে বিশ্বব্যাংক বলেছেন, শ্রীলঙ্কার প্রয়োজন কাঠামোগত সংস্কার বাস্তবায়ন করা। যার লক্ষ্য হবে অর্থনৈতিক স্থিতিশীলত এবং সংকটের শেকড় মোকাবিলা করা। যে সংকটের কারণে দেশটির বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভ কমে গেছে এবং খাদ্য, ওষুধ ও জ্বালানির ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

বিশ্বব্যাংক আরও বলেছে, শ্রীলঙ্কার ভয়াবহ অর্থনৈতিক পরিস্থিতি এবং জনগণের ওপর এর প্রভাব নিয়ে বিশ্বব্যাংক গ্রুপ গভীর উদ্বিগ্ন। চলমান ঋণের আওতায় ওষুধ, রান্নার গ্যাস, সার, শিশুদের জন্য খাবার ও ঝুঁকিতে থাকা মানুষদের নগদ অর্থ সহায়তার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ন্যায্য বিতরণ নিশ্চিত করার জন্য ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে বিশ্বব্যাংক।

সাবেক প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে জুন মাসে বলেছিলেন, চলমান ১৭টি প্রকল্পের ঋণ পুনর্গঠন করবে বিশ্বব্যাংক এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সঙ্গে ঋণ নিয়ে আলোচনার পর আরও সহযোগিতা প্রদান করবে।

১৭ জুলাই থেকে জরুরি অবস্থার মধ্যে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। গণবিক্ষোভের মুখে গোটাবায়া দেশ ত্যাগ করে প্রথমে মালদ্বীপ ও পরে সিঙ্গাপুর চলে যান। নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন আগের প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!